বাংলায়ন সভা’র তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

‘আধুনিকতার মহিমা: বাহ্লটার বেনিয়ামিন ও কাজী নজরুল ইসলাম’ প্রতিপাদ্য নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো বাংলায়ন সভা’র শিল্প-সাহিত্যের বৈঠক ৩। গতকাল শনিবার ২৩ জুলাই রাত সাড়ে সাতটায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালার সেমিনার কক্ষে শিল্প-সাহিত্যের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক সলিমুল্লাহ খান। তিনি বলেন, যে জাতির নিজের সাহিত্য নেই সেই জাতির মেরুদণ্ড থাকে না। বর্তমানে দেশে জনসাহিত্য বিরোধী অবস্থা চলছে। শিক্ষার মাধ্যম যতক্ষণ পর্যন্ত বাংলা না হয় ততক্ষণ সাহিত্যের উন্নতি হবে না।  দেশে মানসম্পন্ন সাহিত্য পত্রিকা নেই। এই শিল্পকলা একাডেমিসহ বিভিন্ন একাডেমির বড় বড় বিল্ডিং আপনাকে বস্তুত ধোঁকা দেবে।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক পর্যায়েও শিক্ষার মাধ্যম কেন ইংরেজি করা হয়? এটা নিয়ে কেউ কথা বলে না। এই দেশে পাঠ্যপুস্তক আমদানি করতে হয়। পাঠ্যপুস্তক লেখার মতো লোকও তেমন নেই। ইংরেজি সাহিত্যের বিরোধিতা করছি না। বাংলা চর্চা করতে চাইলে ইংরেজি বর্জন করতে হবে তা না। ইংরেজি কখনো বাংলার অন্তরায় হতে পারে না।

‘বাংলায়ন সভা’র বৈঠক ৩- অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কবি গিরীশ গৈরিক। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন অর্ধশতাধিক শ্রোতা ও লেখক-পাঠক।

বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলন এবং একুশের চেতনাকে ধারণ করে ‘বাংলা বিশ্বময়’ স্লোগানকে সামনে রেখে  শিল্প-সংস্কৃতির সংগঠন হিসেবে ‘বাংলায়ন সভা’ যাত্রা শুরু করে ২১ সালের ৪ সেপ্টেম্বর। সংগঠনটির মুখপাত্র কথাশিল্পী শামস সাইদ, সম্পাদক কবি ফারুক সুমন ও সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছেন গাজী মুনছুর আজিজ। সৌজন্যে: সমকাল