কবিতাগুচ্ছ: রনি আহম্মেদ

 যেখানে তুমি নেই

কিভাবে ফুলগুলো তাকায়!

আল্লাহর বাগানে ফুটে থাকা মানুষ,

যেন তীব্র কোনো আকাশ !

মহা দিনগুলো কাঁদে।

আমাদের চোখ দিয়ে দেখা

দূর গ্রহগুলো

খোলে তাদের দরজা,

যেন নিঃশ্বাস নেবার আগে

তুমি জন্ম নাও।

অতিরিক্ত ঘণ্টাগুলো বাজে ,

সেখানে যাও।

আল্লাহর দিক থেকে ফেরানো মুখ।

তাদের ফিরে আসতে বোলো !

নদীগুলো গুটিয়ে নেয়

তাদের মহাকাশ।

আর রহস্য এই যে ,

মানুষ হেটে যায়

আমার তোমার ভিতর।

তাদের তারা নেই ,

তাদের আছে তাড়া !

অনন্তকাল পাড়ি দেওয়া

সহজ কথা নয় !

কিন্তু ফুল ঠিক

সেখানেই ফোঁটে,

যেখানে তুমি নেই !

 

আরও পড়ুন- অপরুপ দোজখ- সাঈদ কামালের গল্প

 

 এক আশ্চর্য নীল

যখন তোমাদের চোখ গুলো

আকাশের দিকে

আমি জানতাম প্রতিটি

গানের অর্থ

ভালোবাসার ঘর থেকে

নীল ঝুমুরের

ঘোড়সওয়ার..

রক্ত জবার কাছে

ঘুমে পাওয়া

পোর্সিলিনের শহর..

কাল ছিল

ফেরেস্তাদের রাত

ডানায় ডানায়

আকাশ ছিল ভরা

কত না খোলা বইয়ের পাতা

তাকালো ভবিষ্যতের দিকে

তোমার মৃত্যুর জন্য

আমার রেখে যাওয়া জীবন

বাঁধানো ছিল আন্ড্রোমিডায়

এমন করে কে

আর  বলবে বলো ?

পৃথিবীর  স্মৃতি আমার

তেমন মনে নাই

শুধু একটি দিন ছিল

বাতাসে ঘেরা ,..তোমার

অক্ষর লিখা একটা

জলপাই

নদীতে ভাসছিলো

আমি না দেখার ভাণ করে

ওদের বললাম ,

জানোতো  পাখি গুলো

কত মায়া নিয়ে আসে?

পৃথিবীর এটুকু স্মৃতি নিয়ে

একটা নোটবই

পড়ে  থাকে

ফেরেস্তাদের আলোয়

ঢেকে যায়

পূর্ব কালের

মুসাফিরদের মুখ

নবীজির জিকিরে

আমাদের  জন্ম হলো

নূরের বাগানে

প্রতিনিয়ত বুলবুলির

কিচিরমিচিরের

গালিচায় শোয়া

শত কালের

গোলাপ

তার চোখ মেললো.

পেতলের পেয়ালায়

ভাসতে থাকা কস্তুরী

মখমলের রুমালের

ভাঁজ খুলে

দেখালো এক আশ্চর্য নীলা

মুচকুন্দ ফুলের

সুদূর গোধূলি আগত

সুঘ্রাণ বললো

ভালো থেকো

যত্ন নিও

শেষ কথা তো তাই ছিল

তাই না?

আর

সাদা পোশাকের

গল্প এই ভাবেই

তো শেষ হবার কথা।

 

জয়েন করুন- দিব্যপাঠ সাহিত্য পত্রিকা